img

শুরু হয়েছে জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষা

2016-11-01 02:10:07
2016110106100757775.jpg

ঢাকা: জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) এবং জুনিয়র দাখিল সার্টিফিকেট (জেডিসি) পরীক্ষা শুরু হয়েছে মঙ্গলবার (০১ নভেম্বর) থেকে। এবার ২৪ লাখ শিক্ষার্থী এতে অংশ নিচ্ছে।

এদিন সকাল ১০টায় পরীক্ষা শুরু হওয়ার মধ্য দিয়ে যাত্রা করলো প্রাইমারি স্কুল সার্টিফিকেটের সবচেয়ে বড় এ পরীক্ষা। তিন ঘণ্টার এ পরীক্ষা শেষ হবে দুপুর ১টায়।

এ পরীক্ষায় শ্রবণ প্রতিবন্ধীসহ অন্যান্য প্রতিবন্ধী পরীক্ষার্থীদের জন্য নির্ধারিত সময়ের অতিরিক্ত ২০ মিনিট সময় দেওয়া হচ্ছে। দৃষ্টি প্রতিবন্ধী, সেরিব্রাল পলসিজনিত প্রতিবন্ধী এবং যাদের হাত নেই তাদের জন্য শ্রুতি লেখকের সুযোগ রাখা হয়েছে।

প্রতিবন্ধী (অটিস্টিক, ডাউন সিনড্রোম, সেরিব্রালপলসি) পরীক্ষার্থীদের অতিরিক্ত ৩০ মিনিট সময় বাড়ানোসহ শিক্ষক, অভিভাবক বা সাহায্যকারীর বিশেষ সহায়তায় পরীক্ষায় অংশ নেওয়ার সুযোগ দেওয়া হয়েছে। বহু নির্বাচনী ও সৃজনশীল প্রশ্নপত্রে দু’টি বিভাগ থাকলেও দু’টিতে অংশ নিয়ে একত্রে ৩৩ পেলেই পাস বলে গণ্য হবে। অর্থাৎ এসএসসি’র মত দু’টি অংশে আলাদা করে পাসের প্রয়োজন হবে না।

এছাড়া পরীক্ষা নিয়ন্ত্রণ কক্ষে তথ্য পাঠানো ডিজিটালাইজেশন করা হয়েছে। এর ফলে কেন্দ্রগুলোর সঙ্গে সার্বক্ষণিক যোগাযোগ করা সম্ভব হচ্ছে এবং মন্ত্রণালয়েও কন্ট্রোল রুম খোলা হয়েছে। নকলমুক্ত পরীক্ষাগ্রহণ ও প্রশ্নপত্র ফাঁস প্রতিরোধে প্রয়োজনীয় সব ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

সপ্তমবারের মতো অনুষ্ঠেয় এ পরীক্ষায় এবার মোট ২৪ লাখ ১২ হাজার ৭শ ৭৫ জন পরীক্ষার্থী অংশ নিচ্ছে। এবার ছাত্রের তুলনায় ছাত্রীর সংখ্যা বেশি এক লাখ ৬৪ হাজার ২৯ জন।
 
সারাদেশে জেএসসিতে ১৯ হাজার ৭০৬ ও জেডিসিতে নয় হাজার ৫৫টিসহ মোট ২৮ হাজার ৭শ ৬১ প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা যথাক্রমে দুই হাজার দুই ও ৭শ ৩২টি কেন্দ্রে পরীক্ষা দিচ্ছে। এছাড়া বিদেশের ৮টি কেন্দ্রে ৬শ ৮১ জন পরীক্ষার্থী অংশ নিচ্ছে।
 
জেএসসিতে প্রথম দিন বাংলা প্রথমপত্র এবং জেডিসিতে কুরআন মাজিদ ও তাজবিদ বিষয়ের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

জেএসসিতে এবার ২০ লাখ ৩৮ হাজার ৩০৩ জন এবং জেডিসিতে তিন লাখ ৭৪ হাজার ৪শ ৭২ জন পরীক্ষার্থী অংশ নিচ্ছে।
 
আগামী ১৭ নভেম্বর পর্যন্ত পরীক্ষা শেষে ৩০ ডিসেম্বরের মধ্যে ফলাফল ঘোষণা করা হবে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী।
 
জেএসসি’র সূচি
০১ নভেম্বর বাংলা প্রথমপত্র, ০২ নভেম্বর বাংলা দ্বিতীয়পত্র, ০৩ নভেম্বর ইংরেজি প্রথমপত্র, ০৬ নভেম্বর ইংরেজি দ্বিতীয়পত্র, ০৭ নভেম্বর ইসলাম ও নৈতিক শিক্ষা, হিন্দুধর্ম ও নৈতিক শিক্ষা,বৌদ্ধধর্ম ও নৈতিক শিক্ষা, খ্রিস্টধর্ম ও নৈতিক শিক্ষা।
 
০৮ নভেম্বর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি, ০৯ নভেম্বর বাংলাদেশ ও বিশ্ব পরিচয়, ১০ নভেম্বর শারীরিক শিক্ষা ও স্বাস্থ্য, ১৩ নভেম্বর গণিত, ১৪ নভেম্বর কর্ম ও জীবনমুখী শিক্ষা, ১৫ নভেম্বর বিজ্ঞান, ১৬ নভেম্বর চারু ও কারুকলা এবং ১৭ নভেম্বর হবে কৃষি শিক্ষা, গার্হস্থ্য বিজ্ঞান, আরবি, সংস্কৃত ও পালি।
 
জেডিসি’র সূচি
০১ নভেম্বর কুরআন মাজীদ ও তাজবিদ, ০২ নভেম্বর আকাইদ ও ফিকহ, ০৩ নভেম্বর  তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি, বিজ্ঞান এবং তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (শুধু অনিয়মিত), ০৬ নভেম্বর ইংরেজি প্রথমপত্র, ০৭ নভেম্বর ইংরেজি দ্বিতীয়পত্র, ০৮ নভেম্বর বাংলা প্রথমপত্র, ০৯ নভেম্বর বাংলা দ্বিতীয়পত্র, ১০ নভেম্বর কর্ম ও জীবনমুখী শিক্ষা এবং শারীরিক শিক্ষা ও স্বাস্থ্য।
 
এছাড়া ১২ নভেম্বর গণিত, ১৩ নভেম্বর আরবি প্রথম পত্র, ১৪ নভেম্বর আরবি দ্বিতীয়পত্র, ১৫ নভেম্বর সামাজিক বিজ্ঞান (শুধু অনিয়মিত) এবং বাংলাদেশ ও বিশ্ব পরিচয়, ১৬ নভেম্বর বিজ্ঞান এবং কৃষি, ১৭ নভেম্বর কৃষি শিক্ষা, গার্হস্থ্য অর্থনীতি (শুধু অনিয়মিত) এবং গার্হস্থ্য বিজ্ঞান।

এসএ

img

সম্পর্কিত পোস্ট